ঘনকুয়াশা অব্যাহত থাকলে ঝালকাঠিতে রবি শস্যের ব্যাপক ক্ষতির আশংকা

297
ঘনকুয়াশা শস্যের ক্ষতির আশংকা

প্রিয়ঙ্কা ঘরামী, ঝালকাঠি প্রতিনিধি: রবি মৌসুমে যেভাবে ঘন কুয়াশা পড়তে শুরু করেছে তাতে রবি শস্যের ব্যাপক ক্ষতির আশংকা করছে কৃষিবিদরা।

ঘন কুয়াশা যদি দীর্ঘস্থায়ী হয় তাহলে রবি শস্য বড় ধরণের ক্ষতির মুখে পড়বে বলে ধারণা করছেন তারা।

সদর উপজেলা কৃষি উপসহকারী কর্মকর্তা আসাদুজ্জামান জানান, চলতি মৌসুমে এ আবহাওয়ার কারণে বোরো ধানের চারা হলদে রং হয়ে যাবে। সরিষা, টমেটো ও আলু ক্ষেতে লেট রাইট রোগের প্রকোপ বাড়বে। শাক-সবজির সাধারন বৃদ্ধি ব্যাহত হবে। আম ও কুল গাছ রোগাক্রান্ত হয়ে যাবে।
আরও পড়ুন>>>সাংবাদিক আফজালের মৃত্যুতে ঢাকা উত্তর সিটির মেয়রের শোক প্রকাশ

কারণ কুয়াশায় সবুজ পাতার স্ট্রোমা ছিদ্র হয়ে যায়। এতে সালোকসংশ্লেষন প্রক্রিয়ায় খাদ্য উৎপাদন করতে পারে না। কুয়াশার কারণে আমের মুকুলে এনথ্রাক্স ও পাউডারী মিলভিউ রোগ দেখা যায় এবং পাউডারী মিলভিউ রোগে মুকুল পচে যায়। এছাড়া আম গাছের হোপার পোকার আক্রমণ বেড়ে যেতে পারে।
আরও পড়ুন>>>যশোরে চার হুন্ডি ব্যবসায়ী ইউএস ডলারসহ বিজিবির হাতে আটক

এধরনের আবহাওয়া অব্যাহত থাকলে কুলেও এনথ্রাক্স রোগ দেখা দিতে পারে। এ রোগে কুলের বহিরাবরণে কালো দাগের সৃষ্টি হবে এবং এক সময় কুল পচে যাবে।

কৃষিবিদ কামরুন্নাহার তামান্না জানান, ঘন কুয়াশার কারণে ঘটিত রোগ প্রতিরোধে টমেটো, আলু ও শীতকালীন লতা সবজিতে রেডোমিন গোল্ড স্প্রে করে দিতে হবে।
আরও পড়ুন>>>যশোর র‌্যাবের অভিযানে সাজাপ্রাপ্ত পলাতক আসামী গ্রেফতার

আমের মুকুল ও কুল ফসলে ভালো করে পানি স্প্রে করে দিতে হবে যাতে করে কুয়াশার পানি ও থেমে থাকা জীবানু ধুয়ে ফেলতে হবে। যাতে করে ক্ষতির পরিমান অনেকটাই কম হবে বলে জানান কৃষিবিদ কামরুন্নাহার তামান্না।
আরও পড়ুন>>>যশোর পৌরসভা ভোট হবে আগের সীমানায়

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here