নড়াইলের নড়াগাতীতে এক গৃহবধূকে মারপিটের অভিযোগ

নড়াইলে গৃহবধূকে মারপিটের অভিযোগ
ভুক্তভোগী সালামা বেগম

রিপন বিশ্বাস,জেলা প্রতিনিধি নড়াইলঃ নড়াইলের নড়াগাতীতে সালমা বেগম (৩০) নামে এক গৃহবধূরকে তার শশুর ও দেবর এর বিরুদ্ধে বেধড়ক মারপিট করার অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় নড়াগাতী থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দেওয়া হয়েছে।

রবিবার (৭ই আগস্ট) সকালে নড়াগাতী থানার জয়নগর ইউনিয়নের দেবদুন গ্রামের পু্র্ব পাড়া আশ্রয়ন প্রকল্পে আমড়া পাড়া কে কেন্দ্র করে এ ঘটনা ঘটে।

আহত গৃহবধূ সালমা বেগম দেবদুন গ্রামের নুর আলম মোল্লার (টিটু) স্ত্রী।

মারপিটে অভিযুক্ত মকিতুর রহমান ও আরাফাত মোল্লা ভুক্তভোগী সালামা বেগমের শশুর ও দেবর ।

আরও পড়ুন>>>নড়াইলে লাঞ্চিত অধ্যক্ষকে ফুলের মালা দিয়ে বরণ

ভুক্তভোগী সালামা বেগম বলেন ,দেবদুন আশ্রয়ন প্রকল্পে আমড়া গাছে আমড়া পাড়তে আমার স্বামীর লাগানো আমড়া গাছ থেকে আমার স্বামী আমাড়া পাড়ার জন্য গাছে উঠে , আমি নিচে আমড়া কোড়াতে থাকি ।একই সময় আরাফাত মোল্লা হাতে রামদা নিয়ে উক্ত জায়গায় এসে আমাকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে। তখন মকিতুর রহমানের হুকুমে আরাফাত মোল্লা তার হাতে থাকা রামদার উল্টা পিঠ দিয়ে আমার দুই পায়ে এলোপাতাড়িভাবে মারপিঠ করে নিলাফোলা জখম করে । আরাফাতের স্ত্রী মোস কাজল বেগম ও মৃত কুদ্দুস মোল্লার ছেলে রাসেল মোল্লা তাদের হাতে থাকা লোহার হাতুড়ি দিয়ে আমার বুকে , পিঠে , ঘাড়ে বাড়ি মারে এবং আমার স্বামীকে গাছ থেকে নামলে খুন করে ফেলার হুমকি ধামকি প্রদান করে। স্থানীয়ারা চিৎকার শুনে ঘটনা স্থলে ছুটে এসে সালমা বেগম ও তার স্বামীকে উদ্ধার করে ।

তার স্বামী নুর আলম মোল্লার বলেন, আরাফাত অন্যান্য সহযোগীদের সহযোগীতায় মাদক কারবারি , চুরি , ডাকাতী সহ এলাকায় দীর্ঘদীন যাবত বিভিন্ন ধরনের সন্ত্রাসী কার্যক্রম করে আসছে এবং তার বিরুদ্ধে অত্র থানায় মাদক , চুরি , ডাকাতী , ছিনতাই ও অস্ত্র মামলা রয়েছে ।
নড়াইলে গৃহবধূকে মারপিটের অভিযোগ
অভিযুক্ত মকিতুর রহমান বলেন, এই আশ্রয়ন প্রকল্পে তাদের কোন ঘর নেই। তাই তারা আমড়া পাড়তে গেলে বাঁধা দেওয়া হয় এবং ওই সংঘর্ষের সৃষ্টি হয়‌। মকিতুর রহমান সাংবাদিকদের কাছে নিজেকে মানব অধিকার সংস্থার কালিয়া উপজেলার প্রেসিডিয়াম সদস্য হিসেবে পরিচয় দেন।
নড়াইলে গৃহবধূকে মারপিটের অভিযোগ
এ বিষয়ে নড়াগাতী থানার ভারপ্রাপ্ত অফিসার ইনচার্জ সুকান্ত সাহা বলেন,অভিযোগ পেয়েছি তদন্ত পূর্বক আইন গতো ব্যাবস্থা নেওয়া হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here