বরিশালের বানারীপাড়ায় শিক্ষক ছেলে ও বৃদ্ধা মা কে কুপিয়ে জখম

বানারীপাড়ায়-বৃদ্ধা ও শিক্ষকে- কুপিয়ে জখম

রাহাদ সুমন,(বরিশাল) বানারীপাড়া প্রতিনিধি: বরিশালের বানারীপাড়ায় চাখারের ছোট ভৈৎসর গ্রামে জমি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে প্রতিপক্ষের হামলায় বৃদ্ধা নারী ও তার শিক্ষক ছেলেকে কুপিয়ে জখম করা হয়েছে।

এ ব্যপারে বৃহস্পতিবার (১৭ ডিসেম্বর) দুপুরে উপজেলার চাখার ইউনিয়নের ছোট ভৈৎসর গ্রামের বাসিন্দা ও সৈয়দকাঠি ইউনিয়ন মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ের ধর্মীয় শিক্ষক
আ. হালিম বাদী হয়ে অভিযোগ দায়ের করেছেন।

অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে উপজেলার চাখার ইউনিয়নের ছোট ভৈৎসর গ্রামের আ. হালিম ও তার ভাই আব্দুল কুদ্দুসদের সঙ্গে উক্ত আসামীদের দীর্ঘদিন ধরে জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধ চলে আসছিলো।

এরই জের ধরে গতকাল বুধবার ১৬ ডিসেম্বর সকাল সাড়ে ৭টার দিকে দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে উল্লেখিত আসামীরা আ.হালিমের বড় ভাই চাউলাকাঠি ইসলামিয়া সিনিয়র মাদ্রাসার শরীর চর্চা শিক্ষক আব্দুল কুদ্দুসের বাড়িতে অনাধিকার প্রবেশ করে।

এসময় জমিজমা নিয়ে তর্কবিতর্কের এক পর্যায়ে তারা আব্দুল কুদ্দুস মাষ্টারকে বেধড়ক পিটিয়ে ও কুপিয়ে আহত করে । ছেলেকে রক্ষা করতে গেলে এসময় তার মা আলেয়া বেগমকেও পিটিয়ে আহত করার পাশাপাশি শ্লীলতাহানী করা হয়।এসময় আলেয়া বেগমের গলায় থাকা স্বর্নের চেন ছিনিয়ে নেন মেরিনা বেগম।

আরও পড়ুন>>>বানারীপাড়ায় নির্মিত হচ্ছে দৃষ্টি নন্দন এ-রব ঈদগাঁহ কমপ্লেক্স

আহত মা ও ছেলের ডাক চিৎকার শুনে প্রতিবেশীরা এগিয়ে এলে আসামীরা পালিয়ে যায়।পরে তাদেরকে উদ্ধার করে বানারীপাড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়।

দায়ের করা অভিযোগে আসামী হলেন ,ছোট ভৈৎসর গ্রামের রাকিব হোসেন,মেরিনা বেগম, শাহিনুর বেগম, মর্জিনা বেগম,সেকেন্দার আলী ও মমতাজ বেগম এবং সীমান্তবর্তী উজিরপুর উপজেলার লস্করপুর গ্রামের কহিনুর বেগম ও দেলোয়ার হোসেনকে সুনির্দিষ্ট ও ২/৩ জনকে অজ্ঞাতনামা আসামী করে বানারীপাড়া থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।
এ প্রসঙ্গে বানারীপাড়া থানার ওসি মো. হেলাল উদ্দিন বলেন তদন্তপূর্বক প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

আরও পড়ুন>>>
যশোরের মেয়ে, বাংলার নন্দিত চিত্রনায়িকা শাবনূরের জন্মদিন আজ

ভবনের সেপটিক ট্যাংক বিস্ফোরণ হয়ে শিশুসহ দুইজন নিহত

বাংলাদেশকে সুসম্পর্কের বিষয়ে সবসময় প্রাধান্য দেয়া হয়: মোদি

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here