ভোটের দিন করোনায় প্রাণ গেল মেয়র প্রার্থীর

ভোটের দিন করোনায় প্রাণ গেল মেয়র প্রার্থীর

ডেস্ক রিপোর্ট: খুলনার চালনা পৌরসভা নির্বাচনে বিএনপির মেয়র প্রার্থী আবুল খয়ের খান। মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার পরই করোনাভাইরাস ধরা পড়ে তার। সেদিনেই ভর্তি হয় হাসপাতালে। এরপর থেকে তিনি হাসপাতালেই চিকিৎসাধীন ছিলেন। শেষ পর্যন্ত আজ ভোটের দিন সোমবার বেলা সাড়ে ৩টায় হাসপাতালেই মারা যান তিনি।

বিএনপি প্রার্থীর নির্বাচনী এজেন্ট এবং চালনা পৌর বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক মো. মোজাফফর হোসেন স্বাধীন কণ্ঠকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

মোজাফফর হোসেন বলেন, করোনাভাইরাস শনাক্ত হওয়ার পর ১ ডিসেম্বর খুলনা গাজী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের করোনা ইউনিটে ভর্তি হন বিএনপির মেয়র প্রার্থী আবুল খয়ের। এরপর ২৩ ডিসেম্বর খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের করোনা ইউনিটে ভর্তি করা হয় তাঁকে। আজ সোমবার বেলা সাড়ে ৩টায় হাসপাতালেই শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি।

তিনি আরো বলেন, কয়েক দিন আগে তাঁর করোনা নেগেটিভ এসেছে। তবে ফুসফুসে মারাত্মক সংক্রমণ হয়ে গিয়েছিল। প্রার্থীর মৃত্যুর শোকসংবাদ জানিয়ে চালনা পৌরসভায় মাইকিং হয়েছে।

করোনায় আক্রান্ত থাকা অবস্থায় তাঁর পক্ষে প্রচারণায় অংশ নেন দাকোপ উপজেলা, জেলা ও নগর বিএনপির নেতারা। নির্বাচনে অনিয়মের অভিযোগে সোমবার বেলা পৌনে ২টায় ভোট বর্জনের ঘোষণা দেয় বিএনপি। দাকোপ উপজেলা বিএনপির কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলন করে আনুষ্ঠানিকভাবে ভোট বর্জনের এই ঘোষণা দেন উপজেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক আবদুল মান্নান। এর দেড় ঘণ্টা পরই প্রার্থীর মৃত্যুর খবর আসে।

আবুল খয়ের খান দাকোপ উপজেলা বিএনপির সভাপতি ও চালনা পৌরসভার প্রথম প্রশাসক ছিলেন। তাঁর বয়স হয়েছিল ৬০ বছর।

ভোটের দিন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here