যবিপ্রবির জেনোম সেন্টার পরিদর্শন করলেন ডা. মীরজাদী সেব্রিনা ফ্লোরা

322
যবিপ্রবির জেনোম সেন্টার

নিজস্ব প্রতিবেদক: যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (যবিপ্রবি) জেনোম সেন্টার পরিদর্শন করেছে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (পরিকল্পনা ও উন্নয়ন) ডা. মীরজাদী সেব্রিনা ফ্লোরার নেতৃত্বাধীন একটি দল।

বুধবার (১৮ নভেম্বর) বিকেলে বিশ্ববিদ্যালয়ের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব একাডেমিক ভবনের নিচতলায় অবস্থিত জেনোম সেন্টার পরিদর্শন করেন তারা।

ডা. মীরজাদী সেব্রিনা ফ্লোরা জেনোম সেন্টারের করোনা পরীক্ষণ দলের সদস্যদের জানান, করোনাভাইরাস প্রাদুর্ভাব হলে পরীক্ষা করার জন্য দেশের কয়েকটি বিশ্ববিদ্যালয়ের সাথে তারা যোগাযোগ করেন। এর মধ্যে বাংলাদেশের প্রথম বিশ্ববিদ্যালয় হিসেবে করোনা টেস্ট শুরু করে যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়।

জেনোম সেন্টারের উন্নতমানের ল্যাব সেটআপ দেখেও সন্তোষ প্রকাশ করেন তিনি।

তিনি বলেন, ‘করোনাকালে আপনারা যে অবদান রেখে চলেছেন, সময় স্বল্পতা থাকা সত্ত্বেও কৃতজ্ঞতাস্বরূপ আপনাদের ল্যাব পরিদর্শন করতে এসেছি।’

জেনোম সেন্টার পরিদর্শনে আসায় অধ্যাপক ডা. মীরজাদী সেব্রিনা ফ্লোরার প্রতি কৃতজ্ঞতা জানান ল্যাবটির সহযোগী পরিচালক অধ্যাপক ড. ইকবাল কবীর জাহিদ। তিনি বলেন, ‘স্বাস্থ্য অধিপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক সচক্ষে জেনোম সেন্টারের কার্যক্রম পরিদর্শন করতে এসেছেন, এ জন্য তাকে ধন্যবাদ জানাচ্ছি। তিনি করোনা পরীক্ষায় জিনোম সেন্টারের সক্ষমতা দেখে গেলেন। একইসঙ্গে ল্যাবটির জেনোমিক্সের কার্যক্রম ও ইলেক্ট্রন মাইক্রোস্কপের বিষয়ে জেনে গেলেন। আমরা তাকে অবহিত করেছি, জেনোম সেন্টারে এখন প্রতিদিন ৪০০ নমুনা পরীক্ষা করার সক্ষমতা তৈরি হয়েছে।‘

অধ্যাপক ডা. মীরজাদী সেব্রিনা ফ্লোরার নেতৃত্বাধীন প্রতিনিধি দলের মধ্যে আরো ছিলেন যশোরের সিভিল সার্জন ডা. শেখ আবু শাহীন, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের লাইন ডাইরেক্টর ডা. মো. হাবিবুর রহমান, প্রোগ্রাম ম্যানেজার ডা. আব্দুল আলিম, ডেপুটি প্রোগ্রাম ম্যানেজার ডা. পারভেজ প্রমুখ। অধ্যাপক ড. মো. ইকবাল কবীর জাহিদ ছাড়াও ওই সময় আরো উপস্থিত ছিলেন জেনোম সেন্টারের করোনা পরীক্ষণ দলের সদস্য ড. তানভীর ইসলাম, ড. সেলিনা আক্তার, ড. শিরিন নিগার, ড. হাসান মো. আল-ইমরান প্রমুখ।

বিশ্ববিদ্যালয়ের জনসংযোগ কর্মকর্তা মো. আব্দুর রশিদ এই তথ্য দিয়েছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here