যশোরে এক প্রবাসীর স্ত্রীর সাথে প্রেমের অন্তরঙ্গের ভিডিও ধারণ

0
330
যশোরে প্রবাসীর স্ত্রীর অন্তরঙ্গের ভিডিও ধারণ
প্রতীকী ছবি

ডেক্স রিপোর্টঃ যশোরে এক প্রবাসীর স্ত্রীর সাথে প্রেম ও তার সাথে শারীকির সম্পর্ক করে ভিডিও ধারণ ও বিভিন্ন সময়ে নেয়া অর্থ ফেরৎ চাওয়ায় মারপিট ও শ্লীলতাহানীর ঘটনায় যশোর কোতয়ালী থানায় মামলা হয়েছে। পুলিশ এই মামলায় আসামি আব্দুর রহমান ওরফে আবু তালিপকে আটক করেছে।

আরও পড়ুন>>>যশোর জেলা আ’লীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা সভাপতি-মিলন, সম্পাদক-শাহীন

যশোর সদরের চান্দুটিয়া গ্রামের ওই গৃহবধূ বাদী হয়ে গত ২৯ জুলাই রহমান ওরফে আবু তালিপ নামে একজনসহ অজ্ঞাতনামা আরো ৪/৫জনের বিরুদ্ধে কোতোয়ালি মডেল থানায় এই মামলা করেন।

আসামি রহমান ওরফে আবু তালিপ চৌগাছা উপজেলার দশপাখিয়া গ্রামের আলী ঢালী ওরফে খোকনের ছেলে।

যশোরে প্রবাসীর স্ত্রীর অন্তরঙ্গের ভিডিও ধারণ
বাদী মামলায় উল্লেখ করেছেন, সাত বছর আগে চান্দুটিয়া গ্রামের দক্ষিণপাড়ার এক প্রবাসীর সাথে ওই নারীর বিয়ে হয়। দাম্পত্য জীবনে তাদের দুই বছর বয়সের একটি ছেলের জন্ম হয়। বাদীর স্বামী দীর্ঘ ১৭ বছর ধরে দুবাই প্রবাসী। আসামি আবু তালিপ বাদীর স্বামীর দুর সম্পর্কের আত্মীয় হয়।

আরও পড়ুন>>>নওগাঁয় মোবাইল চুরির অপবাদে হাত-পা বেঁধে শিশু নির্যাতন

আবু তালিপের মা দুলী বেগম একজন কবিরাজ। মাঝেমধ্যে চিকিৎসার জন্য আবু তালিপের মায়ের কাছে যেতেন। এর মধ্যে আবু তালিপের সাথে বাদীর ভাল সম্পর্ক হয়। এক পর্যায় বাদীর ফেসবুক, ইমো, হোয়াটসঅ্যাপ ও জিমেইল আইডি আসামিকে দিয়ে খোলানো হয়।

এরপর আবু তালিপের ব্যবহৃত মোবাইল দিয়ে বাদীকে বিভিন্ন সময় ফোন করে প্রেম প্রস্তাব দেয়। প্রথম দিকে রাজি না হলেও পরে তাদের দুইজনের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। আবু তালিপ গত ২ ফেব্রুয়ারি থেকে বিভিন্ন সময় বাদীর বাড়িতে গিয়ে তাদের মধ্যে শারীরিক সম্পর্ক হয়।

আরও পড়ুন>>>ঝিনাইদহে নামাজে ইকামত দেওয়া নিয়ে সংঘর্ষ একজনকে কুপিয়ে হত্যা

যশোরে প্রবাসীর স্ত্রীর অন্তরঙ্গের ভিডিও ধারণ
ওই সম্পর্কের বিষয়টি আবু তালিপ তার মোবাইল ফোনে ভিডিও রেকর্ড করে রাখে। আসামি তালিপ এরই মধ্যে বিভিন্ন অজুহাতে বাদীর কাছ থেকে ২ লাখ টাকা ধার হিসেবে নেয়। এরপর বাদীকে বিয়ে কথা বলা হলে আবু তালিপ ওই ভিডিও ইন্টারনেটে ছেড়ে দিয়ে মানসম্মানের ক্ষতি করবে বলে হুমকি দেয়।

সর্ব শেষ গত ১৭ জুন বিকেল ৫টার দিকে আবু তালিপসহ অজ্ঞাতনামা আরো ৪/৫ জন তার বাড়িতে এসে গালিগালাজ করে। নিষেধ করা হলে তাকে মারপিট, শ্লীলতাহানী, ঘরে থাকা ৭৫ হাজার ৬শ’ টাকা ও স্বর্ণালংকারসহ প্রায় দুই লাখ টাকার মালামাল নিয়ে যায়।

এসময় বাদীর চিৎকারে আশপাশের লোকজন এগিয়ে এলে তারা পালিয়ে চলে যায়। স্থানীয় গন্যমাণ্য ব্যক্তিদের সমন্বয়ে মিমাংসায় ব্যর্থ হয়ে থানায় এই মামলা করা হয়।


LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here