ঝালকাঠির রাজাপুরে সরকারী ঘর দেবার কথা বলে টাকা নিলেন আওয়ামীলীগ নেতা

সরকারী ঘর দেবার কথা বলে টাকা নিলেন

এ রহমান, ঝালকাঠি প্রতিনিধিঃ ঝালকাঠির রাজাপুরে অসহায় বৃদ্ধাকে সরকারি ঘর পাইয়ে দেয়ার কথা বলে স্থানীয় এক আওয়ামীলীগ নেতা নগদ টাকা হাতিয়ে নিয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

উপজেলার গালুয়া ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা স্বামী পরিত্যক্তা দুই সন্তানের জননী ফেরদৌসী বেগম স্থানীয় আওয়ামীলীগ নেতা মো. অহিদ শরীফ’র নামে এ অভিযোগ করেন। অভিযোগ পেয়ে ব্যবস্থা নেয়ার প্রতিশ্রুতি দিলেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা।

আরও পড়ুন>>>যশোরে সাংবাদিক হানিফ ডাকুয়ার ছেলের হাত ভেঙ্গে দিলো সন্ত্রাসীরা

অহিদ শরীফ উপজেলার গালুয়া দুর্গাপুর এলাকার তোফাজ্জেল হোসেন শরীফের ছেলে ও গালুয়া ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক।

অভিযোগকারী ফেরদৌসী বেগম উপজেলার একই এলাকার মৃত আব্দুল লতিফ মুন্সীর মেয়ে।

অভিযোগে ফেরদৌসী জানান, ১২ বছর পূর্বে তার স্বামী দুই সন্তান রেখে চলে যায়। সেই থেকেই ফেরদৌসী তার বাবার বাড়িতে বাবার দেয়া জমিতে ছোট একটি বাশখুটির খুপড়ি ঘরের মধ্যে দুই সন্তান নিয়ে মানবেতর বসবাস করেন।

স্থানীয় আওয়ামীলীগ নেতা অহিদ শরীফ পাঁচ লাখ টাকা দামের একটি সরকারি ঘর ফেরদৌসীকে পাইয়ে দেয়ার কথা বলে তার কাছে পঞ্চাশ হাজার টাকা দাবী করে। ফেরদৌসী ধার-দেনা করে কয়েক বারে ছয়ত্রিশ হাজার টাকা ম্যানেজ করে অহিদ শরীফকে দেয়।

টাকা দেয়ার পরে তিন বছর ধরে ঘর দেব দেব বলে ফেরদৌসীকে ঘুরাতে থাকে। এখন টাকা ফেরত চাইলে অহিদ শরীফ ফেরদৌসীকে জানায় ‘তোর টাকা ইউএনও খেয়েছে আমি কিভাবে দিব’। পরে নিরুপায় হয়ে ফেরদৌসী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে লিখিত অভিযোগ করেন।
সরকারী ঘর দেবার কথা বলে টাকা নিলেন
এ ব্যাপারে আওয়ামীলীগ নেতা মো. অহিদ শরীফ অভিযোগ অস্বীকার করে জানায়, একটি মহল আমাকে সমাজে হেয়প্রতিপন্ন করতে দীর্ঘদিন থেকে ষড়যন্ত্র করে আসছে।
সরকারী ঘর দেবার কথা বলে টাকা নিলেন
এ ব্যাপারে রাজাপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নুসরাত জাহান খান বলেন, লিখিত অভিযোগ পেয়ে বিষটি তদন্ত করা হচ্ছে, সত্যতা পেলে পরবর্তী আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here