সাতক্ষীরায় স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগ সাবেক যুবলীগ নেতার বিরুদ্ধে

560
ধর্ষণচেষ্টা

ডেস্ক রিপোর্ট: সাতক্ষীরা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চতুর্থ শ্রেণির এক স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগ উঠেছে স্থানীয় যুবলীগ নেতা মিন্টু হোসেন ওরফে নক্কুর (৩০) বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় সাতক্ষীরা সদর থানায় একটি ধর্ষণচেষ্টার মামলা করেছেন ভুক্তভোগী শিক্ষার্থীর মা।

মিন্টু হোসেন সাতক্ষীরা সদর উপজেলার ইসলামপুর গ্রামের বাসিন্দা। শহরের বাঁকাল এলাকার যুবলীগের সাবেক সভাপতি। বর্তমানে তিনি মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরিচ্ছন্নকর্মী হিসেবে কাজ করেন বলে দাবি করেছে পুলিশ।

ভুক্তভোগী স্কুলছাত্রীর মা বলেন, গত ৫ জানুয়ারি সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে শীতবস্ত্র দেয়ার কথা বলে মিন্টু মেয়েকে মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ভেতরে ডেকে নিয়ে যায়। এরপর হাসপাতালের পাঁচতলায় তাকে ধর্ষণের চেষ্টা করে। মেয়ে চিৎকার দিলে মিন্টু পালিয়ে যায়। এ ঘটনায় আমি থানায় মামলা করেছি। আমার মেয়ে চতুর্থ শ্রেণিতে পড়ে। মাঝে মধ্যে আমার চায়ের দোকানে সহযোগিতা করে।

সাতক্ষীরা সদর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আসাদুজ্জামান জানান, হাসপাতালের সামনে মা রাশিদা বেগমের চায়ের দোকানে সহযোগিতা করে শিশু মেয়েটি। হাসপাতালের পরিচ্ছন্নকর্মী মিন্টু হোসেন মেয়েটিকে ডেকে নিয়ে ধর্ষণের চেষ্টা করে। এ ঘটনায় ভুক্তভোগীর মা বাদী হয়ে বুধবার থানায় মামলা করেন।

তিনি জানান, অভিযুক্ত মিন্টু পলাতক। এখনো তাকে গ্রেফতার করা সম্ভব হয়নি। গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

সাতক্ষীরা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক মো. রফিকুল ইসলাম জানান, মিন্টু হোসেন নামে হাসপাতালে কোনো পরিচ্ছন্নকর্মী নেই। তবে তার বাড়ি এই এলাকায় হওয়ায় বিভিন্ন সময় মেডিকেলের ভেতরে ঢুকে ঘোরাঘুরি করে। ধর্ষণচেষ্টার ঘটনাটি শুনেছি। ঘটনাটি দুঃখজনক।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here