নবগঙ্গা নদীতে কালিয়া সেতু নির্ধারিত সময়েও শেষ হয়নি নির্মাণ কাজ , ফের বাড়ল মেয়াদ !

332
সেতুর নকশা জটিলতার কারণে
নবগঙ্গা নদীতে কালিয়া সেতু নির্ধারিত সময়েও শেষ হয়নি নির্মাণ কাজ , ফের বাড়ল মেয়াদ !

 রিপন বিশ্বাস,(নড়াইল) কালিয়া প্রতিনিধি:  নড়াইলের কালিয়ায় নবগঙ্গা নদীর ওপ’র নির্মাণাধীন কালিয়া সেতুর কাজ বর্ধিত সময়েও শেষ হয়নি। কালিয়াবাসীর বহুল প্রত্যাশিত সেতুর ফের বাড়ানাে হয়েছে কাজের মেয়াদকাল।

এর আগেও নকশা জটিলতা, করােনাভাইরাস পরিস্থিতি, নদীর পানির প্রবাহ হঠাৎ বৃদ্ধি ও নানাবিধ কারন দেখিয়ে অতিরিক্ত এক বছর সময় বাড়ানাে হয়েছিল।

এ পর্যন্ত সেতুর নির্মাণকাজের ৫০ শতাংশ শেষ হয়েছে । ফলে ২য় দফায় ফের কাজের মেয়াদকাল বাড়ানাে হলেও এ সময়ের মধ্যে কাজ শেষ হবে কী-না তা নিয়েও দেখা দিয়েছে সংশয়।

সংশ্লিষ্ট সূত্র বলছে , কালিয়া সেতু নির্মাণ কাজ শেষ করার জন্য ২০২০ সালের জুন পর্যন্তু এক বছর সময় বৃদ্ধি করা হয়েছিল । বর্ধিত সময়ের মধ্যে কাজ শেষ করতে না পারায় আবারাে আগামী ২০২১ সালের জুন পর্যন্ত কাজের মেয়াদকাল বাড়ানাে হয়েছে । এক দফা সময় বাড়ানাের পরও কাজ শেষ না হওয়ায় হতাশা ব্যক্ত করেছে নবগঙ্গার দুই পাড়ের মানুষ।

সেতুটি নির্মাণ কাজ শেষ হলে নবগঙ্গা নদীর দু’পারের প্রায় তিন লক্ষাধিক মানুষের যােগাযােগ ব্যবস্থার সহজ হবে । জেলা সদরের সঙ্গে কালিয়া উপজেলার সরাসরি যােগাযােগের কোন ব্যবস্থা নেই । কালিয়া উপজেলার বারইপাড়া খেয়া ঘাটে একটি সেতু না থাকায় উপজেলাটি দুই ভাগে ভাগ হয়ে রয়েছে । নদীর একপাশে রয়েছে ৮ টি অপর প্রান্তে ৬ টি ইউনিয়ন । মােট ১৪ টি ইউনিয়ন ও একটি পৌরসভা নিয়ে কালিয়া উপজেলা গঠিত। সেতুর অভাবে এ উপজেলায় প্রায় ২ শ ৩১ টি গ্রামবাসীর দুর্ভোগের যেন শেষ নেই।

কাজেই বারইপাড়া খেয়াঘাটে একটি সেতু নির্মাণ এলাকাবাসীর প্রাণের দাবি দীর্ঘ দিনের। উপজেলা শহরের সঙ্গে সরাসরি যাতায়াত ব্যবস্থা ভাল না হওয়ায় এখানে গড়ে ওঠেনি কোন শিল্প – কলকারখানা। এলাকায় কৃষকরা তাদের উৎপাদিত পণ্য শহরে আনতে চরম দুর্ভোগ পােহাতে হয়।

তবে ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের গা’ফিল’তি এবং সড়ক ও জনপথ বিভাগের ন’ক’শা জটিলতার কারণে কাজ চলছে মন্থর গতিতে।

নড়াইল সড়ক ও জনপথ বিভাগ সূত্র জানায় , ২০১৭-১৮ অর্থবছরে জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটির ( একনেক ) সভায় নড়াইল – কালিয়া সড়কের প্রায় ২১ কিলােমিটারে সড়ক ও নবগঙ্গা নদীর ওপর কালিয়া সেতু নির্মাণের সিদ্ধান্ত হয় । ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান মাে . মইনুদ্দীন বাসী ও মাে . জামিল ইকবাল যৌথভাবে সেতুটি নির্মাণ করছে । ৬৫ কোটি ৩ লাখ ৮৯ হাজার ৩৪৪ টাকা ব্যয়ে দৈর্ঘ্য ৬৫১.৮৩ মিটার এবং ১০.২৫ মিটার প্রস্থ সেতুটির কার্যাদেশ দেয়া হয়েছিল ১৮ মার্চ ২০১৮ এবং ২০১৯ সালের জুন মাসের মধ্যে নির্মাণ কাজ শেষ হওয়ার কথা থাকলেও তা হয়নি।

নড়াইল সড়ক ও জনপথ বিভাগ সূত্র জানায় , ২০১৭-১৮ অর্থবছরে জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটির ( একনেক ) সভায় নড়াইল – কালিয়া সড়কের ২১ তম কিলােমিটারে নবগঙ্গা নদীর ওপর কালিয়া সেতু নির্মাণের সিদ্ধান্ত হয়। ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান মাে.মইনুদ্দীন বাসী ও মাে.জামিল ইকবাল যৌথভাবে সেতুটি নির্মাণ করছে । ৬৫ কোটি ৩ লাখ ৮৯ হাজার ৩৪৪ টাকা ব্যয়ে দৈর্ঘ্য ৬৫১.৮৩ মিটার এবং ১০.২৫ মিটার প্রস্থ সেতুটির কার্যাদেশ দেয়া হয়েছিল ১৮ মার্চ ২০১৮ এবং ২০১৯ সালের জুন মাসের মধ্যে নির্মাণ কাজ শেষ হওয়ার কথা থাকলেও তা হয়নি।

ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের ডেপুটি প্রজেক্ট ম্যানেজার মিনহাজুল ইসলাম বলেন, সেতুর নকশা জটিলতার কারণে প্রথম মেয়াদে এবং হঠাৎ বর্ষায় নদীতে পানির প্রবাহ বেড়ে যাওয়ায় এবং করাে’না পরিস্থিতির কারণে সেতুটির নির্মাণ কাজের বিলম্ব হয়েছে । ইতিমধ্যে ৫০ ভাগ সম্পন্ন হয়েছে । এক বছর সময় বাড়ানাে হয়েছে । ১৭৫ জন শ্রমিক নিয়মিত কাজ করছেন । আশা করি নির্ধারিত সময়ের মধ্যে কাজ শেষ হবে।

আরো পড়ুন:
বেনাপোল ভবারবেড় থেকে ১কেজি ভারতীয় গাঁজা সহ ১জন আটক
জীবনের শেষ মুহুর্ত পর্যন্ত জনকল্যাণে কাজ করে যাবো…এমপি শাহে আলম
পাইকগাছায় প্রতিবন্ধীদের মাঝে হুইল চেয়ার ও প্রতিবন্ধী সহায়ক উপকরণ বিতরণ
২০২১ শিক্ষাবর্ষে ভর্তি ও টিউশন ফি বাড়ছে না
সৌদি সহায়তায় ৮ বিভাগে ‘আইকনিক মসজিদ’ নির্মাণ হবে

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here